করোনা প্রতিরোধে রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়াল গোটা সিএবি। বিস্তারিত পড়ুন…

করোনা প্রতিরোধে রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়াল গোটা সিএবি। বিস্তারিত পড়ুন…

নিজস্ব প্রতিনিধি : করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য রাজ্যের মানুষের কাছ থেকে অর্থ সাহায্যের আবেদন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার দুপুরে নবান্নে আয়োজিত একটি সাংবাদিক সম্মেলনে এই আবেদন করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। আর ‘দিদি’র সেই আবেদনের পরেই সারা দিয়েছিলেন সিএবি সভাপতি অভিষেক ডালমিয়া। দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করে সেই তহবিলে ২৫ লক্ষ টাকা অর্থসাহায্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সিএবি। পাশাপাশি ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৫ লাখ টাকা দিয়েছেন অভিষেক। আর এবার মারণ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়াল গোটা সিএবি ও বঙ্গক্রিকেট সমাজ।

একজোট হয়ে রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়াল সিএবি। ছবি সৌজন্যে : সিএবি।

সিএবি’র দুই সচিব স্নেহাসিশ গঙ্গোপাধ্যায়, দেবব্রত দাস, কোষাধ্যক্ষ দেবাশিস গঙ্গোপাধ্যায় ও সহ-সভাপতি নরেশ ওঝা প্রশংসনীয় উদ্যোগ নিলেন। রাজ্য সরকারের অপাতকালীন ফান্ডে অর্থ সাহায্য করলেন দুই সচিব ও সহ-সভাপতি। স্নেহাসিশ, দেবব্রত ও নরেশ ওঝা তাঁদের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ১ লাখ টাকা দেওয়ার পাশাপাশি কোষাধ্যক্ষ দেবাশিস গঙ্গোপাধ্যায়ের সাউথ সুবার্বান ক্লাব রাজ্য সরকারের হাতে ১ লাখ টাকা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল। একইসঙ্গে স্নেহাসিশের আ্যকাডেমি ‘টুয়েন্টি টু ইয়ার্ডস’এর তরফ থেকেও সরকারের হাতে ৫০ হাজার টাকা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। ফলে সমস্যায় জর্জরিত মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সিএবি’র সমস্ত ইউনিট, প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটার, স্কোরার, আম্পায়ার, ম্যাচ অবজারভার, কোচ, কমিটি মেম্বারদের অর্থ সাহায্য করার আবেদন করলেন অভিষেক ডালমিয়া। এই বিষয়ে অভিষেক বলেন, “আমরা সবাই সামাজিক জীব। এবং ক্রিকেট তো জেন্টালসম্যান গেমস বলে খ্যাত। তাই সমাজের দুঃসময়ে সবাই একজোট হয়ে লড়াই করার অঙ্গীকারবদ্ধ হলাম।”

Loading...
CATEGORIES
TAGS
Share This