ফের বিবৃতি পাল্টা বিবৃতিতে সৃঞ্জয় বসু – দেবব্রত সরকার…

ফের বিবৃতি পাল্টা বিবৃতিতে সৃঞ্জয় বসু – দেবব্রত সরকার…

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ বিবৃতি পাল্টা বিবৃতি চলছেই। সেই ডার্বির আগের দিন থেকে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সামনেই বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েছিলেন মোহনবাগান সচিব সৃঞ্জয় বসু ও ইস্টবেঙ্গল কর্তা দেবব্রত সরকার। তা এখনও অব্যাহত।

সোমবার যেমন দেবব্রত সরকারকে এক হাত নিলেন মোহনবাগান সচিব সৃঞ্জয় বসু। তিনি বলেন, “আমি শুনলাম এদিন ইস্টবেঙ্গল মাঠে ট্রায়াল হয়েছে। দেবব্রত সরকারের মনে হল না — এতে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে। বাচ্চাদের জীবন নিয়ে উনি ঝুঁকি নিয়ে ফেললেন। এটা ওনার খেয়াল রাখা উচিত ছিল।”

আসলে সেইদিন মুখ্যমন্ত্রীর সামনে দেবব্রত সরকারের কথাগুলো ভোলেননি তিনি। দর্শকশুন্য স্টেডিয়ামে খেললেও করোনা ভাইরাস হতে পারে। তারপরেও কী করে দেবব্রত সরকার ইস্টবেঙ্গল মাঠে ট্রায়াল রাখলেন– সেটাই বুঝতে পারলেন না সৃঞ্জয় বসু। তিনি আরও বলেন, “মোহনবাগান অনেক কষ্ট করে এই জায়গায় এসেছে। কেউ আটকাতে পারবে না। উপরে ঈশ্বর আছেন। আর করোনা ভাইরাস নিয়ে ওনার একারই চিন্তা আছে। আর কারও নেই।”

এর পাল্টা বিবৃতি দেন ইস্টবেঙ্গল কর্তা দেবব্রত সরকার। তিনি বলেন, “করোনা ভাইরাস নিয়ে তো আমার কোনও বক্তব্য নেই। সে তো রাজ্য সরকার, কেন্দ্রীয় সরকার দেখছে। আমি শুধু বলেছিলাম দর্শকশুন্য স্টেডিয়ামে খেলব না। এই ম্যাচটায় দর্শকদের বঞ্চিত করা উচিত নয়। ওর একটু পরিণত মন্তব্য করা উচিত।”

Loading...
CATEGORIES
Share This